Electrum Wallet এর বিস্তারিত

Electrum Wallet হল একটি BTC ওয়ালেট যা ব্যবহার করে আপনি একাধিক অ্যাড্রেস এ একই ট্রান্সেকশনে একবার ফী দিয়েই BTC সেন্ড করতে পারবেন। অল্প Fee দিয়ে বা Fee ছাড়া Bitcoin সেন্ড করার উপায় পোষ্ট হতে আপনারা জেনেছেন যে ব্যক্তিগত ওয়ালেট সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারলে অনেক ফী সাশ্রয় করা সম্ভব। তাই এই পোষ্টে কিভাবে একবার ফী দিয়ে একাধিক অ্যাড্রেস এ BTC সেন্ড করা যায় তা নিয়ে আলোচনা করা হবে।

Electrum Wallet Download

সবার আগে Electrum Wallet ডাউনলোড করুন এই লিঙ্ক হতে । এটা ইলেক্ট্রাম ওয়ালেট এর অফিশিয়াল সাইট। এখানে যেকোনো অপারেটিং সিস্টেমের জন্য ও মোবাইলের জন্য ওয়ালেট দেওয়া আছে। ডাউনলোড করার পর নিচের পদ্ধতিতে ওয়ালেট সেটাপ করুন।

ওয়ালেট সেটাপ করার পদ্ধতি

প্রথমে সেটাপ ফাইল ওপেন করুন।

Electrum Wallet Setup File

ইনিষ্টলার ওপেন হলে পছন্দ মত ড্রাইভ সিলেক্ট করে “Install” বাটনে ক্লিক করুন তাহলেই সেটাপ হয়ে যাবে।

Electrum Wallet Installer

এখন Desktop থেকে ইলেক্ট্রাম ওয়ালেট ওপেন করুন।

ওয়ালেট তৈরীর পদ্ধতি

ইলেক্ট্রাম ওয়ালেট ডেক্সটপ থেকে ওপেন করলে এমন শো করবে।

Wallet Generation Step 1
Wallet Generation Step 1

এখন Wallet এর বক্স এ পছন্দ মত নামে দিন। তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

Wallet Generation Step 3
Wallet Generation Step 2

এরপর “Standard wallet” অপশন সিলেক্ট করুন এবং Next বাটনে ক্লিক করুন। যখন আপনি ওয়ালেট ব্যবহার করতে করতে অভ্যস্ত হয়ে যাবেন তখন অন্য অপশনগুলো প্রয়োজন মত ব্যবহার করতে পারবেন।

Wallet Generation Step 4
Wallet Generation Step 3

এরপর “Create a new seed” অপশনটি সিকেক্ট করুন ও Next বাটনে ক্লিক করুন।

Wallet Generation Step 5
Wallet Generation Step 4

এই বক্সে যে ১২ টি ওয়ার্ড লেখা আছে তা একটা সুরক্ষিত স্থানে সংরক্ষন করুন। কোন কারনে ওয়ালেট নষ্ট হয়ে গেলে এই সীড কী দিয়ে আপনার BTC রিকভার করতে পারবেন। যদি এই সীড কী হারিয়ে যায় তবে BTC রিকভার করা সম্ভব হবে না কোন মতেই।

সীড কী একটা নোটপ্যাড ফাইলে সেভ করুন ও তারপর Next বাটনে ক্লিক করুন।

Wallet Generation Step 6
Wallet Generation Step 5

এখন আগে লিখে রাখা সীড কী এখানে পেষ্ট করুন তারপর Next বাটনে ক্লিক করুন।

Wallet Generation Step 7
Wallet Generation Step 6

এখন আপনার পছন্দ মত পাসওয়ার্ড দিন ও Next বাটনে ক্লিক করুন।

Wallet Generation Step 8
Wallet Generation Step 7

Next বাটনে ক্লিক করার পর এমন শো করবে। তাহলেই বুঝতে হবে যে আপনার ওয়ালেট তৈরী হয়ে গেছে।

ওয়ালেট ওপেন করার পদ্ধতি

ওয়ালেট তৈরীর পর কোন কারনে ক্লোস করে দিলে তারপর ওয়ালেট কিভাবে ওপেন করতে হবে এখানে তার ধারনা দেওয়া হল।

Wallet Open Step 1
Wallet Open Step 1

ডেক্সটপ থেকে ওয়ালেট ওপেন করলে এমন শো করবে। এখন Choose বাটনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করলে নিচের ছবির মত আসবে।

Wallet Open Step 2
Wallet Open Step 2

এখন যে নামে ওয়ালেট ওপেন করা হয়েছিল তা সিলেক্ট করতে হবে। সিলেক্ট করে Open বাটনে ক্লিক করলে নিচের ছবির মত আসবে যেখানে ওয়ালেট তৈরীর সময় দেওয়া পাসওয়ার্ড দিতে হবে।

Wallet Open Step 3
Wallet Open Step 3

সঠিক পাসওয়ার্ড দেওয়ার পর Next বাটনে ক্লিক করলে ওয়ালেট ওপেন হবে।

Wallet Open Step 4
Wallet Open Step 4

ওয়ালেট সফল ভাবে ওপেন হলে অতীতের সকল হিষ্টোরী শো করবে।

mBTC কে BTC বানানোর পদ্ধতি

আপনি ওয়ালেট তৈরীর পর mBTC আকারে আপনার BTC এর ব্যালেন্স শো করবে কিন্তু সাধারনত সকলে BTC আকারেই ব্যালেন্স দেখতে অভ্যস্ত। তাই এখন mBTC কে কিভাবে BTC বানানো যায় তা দেখানো হল।

প্রথমে Tools মেনু তে দিয়ে Preferences এ ক্লিক করুন।

mBTC to BTC Step 1
mBTC to BTC Step 1

তারপর Zeros after decimal point এর বক্স এ 8 (আট) লিখুন ও Base Unit অপশন এ BTC সিলেক্ট করুন নিচের ছবির মত।

mBTC to BTC Step 2
mBTC to BTC Step 2

তারপর Close বাটনে ক্লিক করুন। তাহলেই আপনার ব্যালেন্স mBTC থেকে BTC হয়ে যাবে।

BTC রিসিভ করার পদ্ধতি

এখন কিভাবে ওয়ালেটে BTC রিসিভ করবেন তা দেখানো হচ্ছে। সবার প্রথমে Receive ট্যাবে ক্লিক করুন।

BTC Address Genaration 1
BTC Address Genaration 1

ক্লিক করার পর “Description” বক্সে পছন্দ মত ডেস্ক্রিপশন দিন। তারপর New Address এ ক্লিক করুন।

BTC Address Genaration 2
BTC Address Genaration 2

ক্লিক করার পর উপরের ছবির মত শো করবে। ছবিতে দেখানো জায়গায় আপনার অ্যাড্রেস পেয়ে যাবেন। এই অ্যাড্রেস ব্যবহার করে আপনি BTC রিসিভ করতে পারবেন যে কোন পরিমানে।

একাধিক অ্যাড্রেস এ BTC সেন্ড করার পদ্ধতি

এখন কিভাবে একাধিক অ্যাড্রেস এ একই ট্রান্সেকশনে একবার অল্প পরিমানে ফী দিয়ে BTC সেন্ড করা যায় তা নিয়ে আলোচনা করা যাক। একসাথে একাধিক অ্যাড্রেস এ BTC সেন্ড করতে হলে সবার প্রথমে নিচের ছবির মত Tools মেনুতে যান ও Pay to many অপশন সিলেক্ট করুন।

Multi-Address Send Step 1
Multi-Address Send Step 1

এরপর প্রতি লাইনে প্রথমে অ্যাড্রেস লিখুন এবং তারপর কমা দিয়ে অ্যামাউন্ট লিখুন। তারপর কীবোর্ড এর Enter বাটন চাপ দিয়ে পরের লাইনে যান ও একই ভাবে অ্যাড্রেস ও অ্যামাউন্ট লিখুন। এভাবে যতগুলো অ্যাড্রেস এ সেন্ড করতে চান ততগুলো অ্যাড্রেস ও পরিমান লিখুন। এরপর “Pay” বাটনে ক্লিক করুন।

Example:

3EfZN8Bp17XeNpeRnN9RAQ9x8EW7m4epo, 0.001
bc1qph3rcer0quq5ksadxjy7c9wdu57lqnnh4t6c6k, 0.002
bc1qphqufsdfsdfsdfsdq5ksadxjy7c9wdu57lqnnh4t6c6k, 0.003

Multi-Address Send Step 3
Multi-Address Send Step 2

Pay বাটনে ক্লিক করলে নিচের ছবির মত পাসওয়ার্ড দিতে বলবে।

Multi-Address Send Step 4
Multi-Address Send Step 3

তখন আপনি আপনার পছন্দ মত ফী সিলেক্ট করে পাসওয়ার্ড দিয়ে সেন্ড এ ক্লিক করলেই আপনার ট্রান্সেকশনটি ব্লকচেইনে চলে যাবে। নিচের ছবিতে দেখা যাচ্ছে ৪টি অ্যাড্রেস এ BTC সেন্ড করার জন্য মাত্র 0.00002500 BTC ফী দেওয়া হয়েছে যেখানে অন্য কোন সাইট ব্যবহার করলে কমপক্ষে 0.0005 – 0.001 BTC ফী দিতেই লেগে যেত।

Multi-Address Send Step 5
Multi-Address Send Step 4

আমাদের করা ট্রান্সেকশনটি ব্লক এক্সপ্লোরার এ ট্র্যাক করার পর দেখা যাচ্ছে যে মাত্র ১৮ মিনিটে ৩টা কনফার্মেশন জেনারেট হয়েছে এত অল্প ফী দেওয়ার পরেও।

তাই সবশেষে বলা যায় যে, BTC একাধিক অ্যাড্রেস এ সেন্ড করার জন্য Electrum Wallet ব্যবহার করাই ভাল।

শেয়ার করে বন্ধুদের জানার সুযোগ করে দিন